বডি লোশন ভালো কোনটা

ফর্সা হওয়ার বডি লোশন

অনেকের আছে মুখ ফর্সা কিন্তু হাত পা শ্যামলা বা কালো। এতে দেখতে খুবেই খারাপ লাগে। মানুষের অন্যান্য অংশ ঢাকা থাকলেও হাত,পা ঢাকা থাকে না। তাই বাহিরের ধুলা-বালু হাত,পায়ে লাগে আবার সূর্যের রশ্ম সরাসরি হাত,পায়ে লাগে যার কারনে হাত,পা কালো হয়ে যায়। আর যাদের মুখের থেকে হাত,পা কালো তারা লজ্জায় থাকে। তাই তারা বিভিন্ন ভাবে হাত,পা ঢেকে রাখে। কালো হাত ঢেকে রাখার জন্য তারা লম্বা হাতার জামা পরে আবার কালো পা ঢেকে রাখার জন্য জুতা পরে বের হয়। এতে তারা দুশ্চিন্তায় পরে যায়।

শরীর ফর্সা করার জন্য বিভিন্ন লোশন ব্যবহার করে ফর্সা হয়। এতে ত্বকের আরও ক্ষতি হয়। কারন এতে রয়েছে ক্যেমিকাল, যা ত্বকের জন্য খুবেই ক্ষতিকর। আর ত্বক ফর্সা করার লোশন ব্যবহার করার ফলে ফর্সা হবে। কিন্তু দেখা যায় লোশন ব্যবহার করা বন্ধ করে দিলে আগে যেমন ছিলেন তামন দেখাবে বা তার চেয়েও বশি কালো দেখাবে।

তাই এসব ক্যেমিকাল লোশন ব্যবহার না করে ভেষজ উপাদান বা প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরি প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। আপনাদের জন্য প্রাকৃতিক উপাদান নিয়ে তৈরি করা হয়েছে পাইকারি ঘরে কিছু প্যাক। যা ব্যবহার করলে আপনার হাত,পা অনেক বেশি ফর্সা করবে। এতে কোন পাশবপ্রতিক্রিয়া নেই। এবং এই ফর্সা স্থায়ীভাবে থাকবে।

লেবুর রস
প্রথমে লেবু থেকে রস বের করবেন। এরপর লেবুর রসে তুলো ভিজিয়ে আপনার হাত,পায়ে লাগিয়ে নিন। এরপর ১০ মিনিট অপেক্ষা করে শুঁখিয়ে নিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাত-পা ধুয়ে নিন। কিন্তু সাবধান লেবুর রস আপনার হাত,পায়ে অবশ্যই রাতে লাগাতে হবে। ভুলেও দিনের বেলায় লেবুর রস লাগাবেন না। কারন লেবুর রস লাগিয়ে যদি আপনি রোদে যান তবে আপনার হাত,পা ফর্সা না হয়ে আরও কালো হবে। তাই সাবধান! লেবুর রস ত্বকে লাগিয়ে কখনই রোদে যাবেন না।

মধু ও শসা
শসা থেকে রস বের করুন,এরপর এই রসের সাথে মধু মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার এই মিশ্রণ টি আপনার হাত,পায়ে লাগিয়ে নিন। এরপর হাল্কা করে ম্যাসাজ করুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ২ বার ইউজ করবেন। এতে আপনার হাত-পা উজ্জবলহবে না,কিন্তু এতে আপনার হাত,পা খসখসে ভাব দূর করবে এবং মসৃণ ও কোমল করে তুলবে।

আপেল সাইডার ভিনেগার
আপেল সাইডার ভিনেগার এই উপাদানটি ত্বকের জন্য খুবেই উপকারী। এই উপাদানের ফলে ত্বকের টানটান ভাব দূর হয় খুব সহজেই। দুই চামচ আপেল সাইডার ভিনেগার নিয়ে এর সাথে ছয় চামচ পানি মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এরপর এই পেস্ট টি আপনার হাত, পায়ে ভালোভাবে মাখিয়ে নিন। কিছু সময় রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাত, পা ভালোভাবে ধুয়ে নিন। এভাবে ভালো ফলাফল পেতে প্রতিদিন এ পেস্ট টি হাত, পায়ে ব্যবহার করুন।

  • সিক্রেট বডিপ্যাক

    কালচে দাগ, রোদে পোড়া তুলে খুব দ্রুত ব্রাইট,গ্লো করে,ফর্সা করে।হাত, পা,ঘাড়,গলা,পেট,পিঠ সবখানে সমানভাবে ব্রাইট করে।সফট…
    Add to cart 450.00৳ 

মুলতানি মাটি এবং কাঁচা হলুদ
এক কাপ কাঁচা হলুদ এবং পরিমান মতো মুলতানি মাটি নিয়ে একটি প্যাক তৈরি করবেন। সাথে একটু লেবুর রস দিতে পারেন। এরপর এই প্যাক টি শরীরে মেখে নিন। ২০ মিনট পর শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানিতে শরীর ধুয়ে ফেলুন। এ প্যাক টি ব্যবহার করলে আপনার শরীর খুব উজ্জ্বল এবং ফর্সা হবে।

চিনির স্ক্রাব
চিনির স্ক্রাব ডেড স্কিন ও দাগ দুটোই দূর করতে সাহায্য করে। দুই চামচ চিনির সাথে চার চামচ অলিভ অয়েল নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করুন। এরপর আপনার শরীরে ভালোভাবে ম্যাশাজ করুন। কিছুক্ষন পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে পরিস্কার করে ফেলুন। ভালো ফলাফল পেতে এভাবে এ প্যাকটি সপ্তাহে অন্তত দুই থেকে তিন দিন ব্যবহার করতে পারেন।

কাঁচা দুধ
ত্বক এর কালচে ভাব দূর করতে কাঁচা দুধ খুবেই উপকারি। কাঁচা দুধে তুলো ভিজিয়ে তা ত্বকে  মেখে নিন। এরপর ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুঁকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে নিন ভালোভাবে। প্রতিদিন এভাবে কাঁচা ত্বকে লাগালে অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই আপনার ত্বকের কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে। এতে আপনার ত্বক ফর্সা হবে।

কর্ণফ্লাওয়ার
রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। একটি পাত্রে কুসুম গরম পানি নিয়ে এতে কর্ণফ্লাওয়ার মিশিয়ে নিন। এরপর এতে পা ভিজিয়ে রাখুন প্রায় পাঁচ থেকে ছয় মিনিট। এভাবে প্রতিদিন রাতে পা ভিজিয়ে রাখবেন। এতে আপনার পা ফর্সা হবে খুব।

মসুর ডাল
মসুর ডাল পেস্ট করে এর সাথে দই বা মধু মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। এবার এই প্যাক টি আপনার হাত,পায়ে মাখুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পুরোপুরি শুঁখিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক টি আপনার শরীর উজ্জ্বল ও ফর্সা করবেই না শুধু,সেই সাথে আপনার শরীরের মরা চামড়া তুলতে সাহায্য করবে।

টমেটো
একটা টমেটো নিয়ে পেস্ট করুন। এরপর এই পেস্ট আপনার হাত,পা এ লাগিয়ে নিন। এভাবে ১৫ মিনিট পর হাত, পা ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই আপনার হাত,পায়ের কালচে ভাব দূর হবে এবং সেই সাথে উজ্জ্বল এবং চকচকে করে তুলবে।

উপরোক্ত প্যাক গুলির সাথে আরও কিছু ভেষজ উপাধান মিশিয়ে শরীরে ব্যবহার করলে সব থেকে ভালো ফলাফল পাবেন যা পাইকারি ঘরের প্যাক গুলিতে ব্যবহার করা হয়েছে। পাইকারি ঘরে আছে প্রাকৃতিক উপাদান এবং ভেষজ উপাদানে তৈরি কিছু প্যাক। যা ব্যবহার করলে খুব ভালো ফলাফল পাবেন। এতে কোন পাশ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। যা আপনার শরীরের জন্ন খুবেই ভালো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

4 × 5 =