মুখ ফর্সা করার সব থেকে ভালো নাইট ক্রিম কোনটা?

আপনার কি জানা আছে, আপনি যখন রাতের বেলায় বালিশে বিশ্রাম নিন তখন আপনার ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত কোষগুলি কাজ শুরু করে দেয়। আর সূর্যাস্ত থেকে সূর্যোদয় পর্যন্ত হচ্ছে। আপনার ত্বক কে বিশ্রাম দেয়ার সময় এবংনতুন করে ত্বক কে তরতাজা করার সেরা সময়। ত্বক পরিচর্চা করার জন্য কোন ভাবেই গাফিলতি না করে প্রতিদিনে অভ্যাস করুন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে কোন নাইট ক্রিম ব্যবহার করার। এতে আপনার ত্বক ভালো থাকবে এবং মুখ ফর্সা হবে।

নাইট ক্রিম শুধু আপনার ত্বক ফর্সাই করবে না সারা দিনের হারিয়ে যাওয়া আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনবে এবং সেই সাথে কোলাজেনের কর্মক্ষমতা বাড়াবে। যেদিন রাতে মুখে ক্রিম মেখে ঘুমাবেন,পরদিন ঘুম থেকে উঠে দেখবেন আপনার মুখটি খুব উজ্জ্বল এবং খুব তরতাজা লাগছে। তাই আর দেরি না করে মুখ সতেজ ও ফর্সা করার জন্য নাইট ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

তাহলে চলুন কি কি ক্রিম ব্যবহার করবেন জেনে নেই-

ল্যাকমে অ্যাবসোলিউট পারফেক্ট রেডিয়ান্স স্কিন লাইটেনিং নাইট ক্রিম
ত্বককে ঝলমলে আর উজ্জ্বল করতে এই ক্রিমটি ব্যবহার করতে পারেন। এই নাইট ক্রিমটি শুধু রিপেয়ার আর ময়েশ্চরাইজ়িংই করে না,সেই সাথে ত্বক উজ্জ্বল করে। এই নাইট ক্রিমটি আপনি সব ঋতুতে ব্যবহার করতে পারবেন। আর এ ক্রিম সবরকম ত্বকের জন্য উপযোগী।

ল্যাকমে ইয়ুথ ইনফিনিটি স্কিন স্কাল্পটিং নাইট ক্রিম
অনেকের ত্বক আছে ম্যাড়মেড়ে আর ঝুলে গেছে। দেখতে বাজে লাগে ,তাই তারা খুব হতাশায় থাকে। এখানে হতাশার কোন কারন নেই। আপনারা ল্যাকমে ইয়ুথ ইনফিনিটি স্কিন স্কাল্পটিং নাইট ক্রিমটি ব্যবহার করতে পারেন। এই ক্রিমটি ত্বকের ম্যাড়মেড়ে ভাব দূর করে এবং ত্বককে টানটান ভাব এনে দেয়। এই ক্রিমের লুমিনাইজ়িং পার্লস ত্বককে উজ্জ্বল এবং জ্বলমলে করে।


পন্ডস এজ মিরাকল রিঙ্কল কারেক্টর নাইট ক্রিম
অনেকের অকালে ত্বক বুড়ি হয়ে যায়। এতে ত্বকের বয়সজনিত চিহ্নগুলির ভাব দেখা যায়। এসব প্রতিরোধ করতে ব্যবহার করতে পারেন পন্ডস এজ মিরাকল রিঙ্কল কারেক্টর নাইট ক্রিম। এ ক্রিম ত্বকের কোষের পুনরুজ্জীবন ঘটায় খুব তারাতারি। এই ক্রিম ব্যবহারে ত্বকের সূক্ষ্ম বলিরেখা, ডার্ক স্পটস, স্মাইল লাইনস আর ডার্ক সার্কলস দূর করতে সাহায্য করে।

পন্ডস গোল্ড রেডিয়ান্স ইয়ুথফুল নাইট ক্রিম
এই নাইট ক্রিমে আছে ভিটামিন বি৩ এবং ভিটামিন এ যা বয়স্ক ভাব দূর করতে সাহায্য করবে। অনেকের ত্বক কোচকানো, মেচতা বা দাগছোপ দেখা যায়। তাদের জন্য পন্ডস গোল্ড রেডিয়ান্স ইয়ুথফুল নাইট ক্রিমটি খুব ভালো। এছাড়া শুষ্ক ত্বকের জন্য এ ক্রিম খুব ভালো। এতে আপনার ত্বক মসৃণ হবে এবং আর্দ্র আর সুষম থাকবে।

  • সিক্রেট ফেসপ্যাক

    সিক্রেট ফেসপ্যাক পরিমান : ২৫০ গ্রাম। কাজঃ স্কীন ফেয়ার, গ্লো & স্মুথ করে। সান বার্ন…
    Add to cart 380.00৳ 

ওয়াও ফেয়ারনেস ক্রিম
এই ক্রিমে কোন প্রকার ক্ষতিকর ক্যামিকেল নেই। এই ক্রিমটি শুধু মুখ ফর্সাই করে না সেই সাথে এই ক্রিমে রয়েছে অনেক গুনাবলি। এই ক্রিমটি ত্বকের UVA এবং UBV রশ্মি থেকে রক্ষা করে। এই ক্রিমটি বয়সের দাগ গুলি দূর করে দেয় সেই সাথে ত্বককে করে তোলে আর বেশি উজ্জ্বল।

বায়োটিক বায়ো কোকোনাট হোয়াইটেনং অ্যান্ড ব্রাইটেনিং ক্রিম-
বায়োটিক এ রয়েছে এক্সট্রা  ভার্জিন নারকেল তেল ও অন্যান্য ভেজস উপাদান। এই ক্রিমটি শুস্ক ত্বকের জন্য খুবেই ভালো। এই ক্রিম একটু তেলতেলে ক্রিম যার কারনে ত্বকের পোর ব্লক করে দিতে পারে। তাই যাদের মুখ তেলতেলে ভাব তারা এই ক্রিম ব্যবহার না করাই ভালো।

স্নো হোয়াইট ক্রিম
এ ক্রিম বাংলাদেশ বাজারে ততটা পাওয়া যায় না। এই ক্রিম টা হচ্ছে কোরিয়ান ্রোডাক্ট। এটি শুধু ত্বক ফর্সা করে না সেই সাথে ত্বক ময়শ্চারাইজ করে এবং সাথে স্বাস্থ্যউজ্জ্বল লুক এনে দেয়। এই ক্রিম হাইড্রেশনে সহায়তা করে এমন উদ্ভিদ-উদ্ভূত অ্যামিনো অ্যাসিড বেটেইন সামগ্রী দ্বারা তৈরি। তবে যাদের স্কিন শুস্ক তাদের এ ক্রিম ব্যবহার না করাই ভালো।

পন্ডস হোয়াইট বিউটি
পন্ডস ইন্সটিটিউট এর গবেষকদের বিশেষ গবেষণা এবং গবেষক দ্বারা তৈরি এ ক্রিম। এ ক্রিমটি ভিটামিন B3 দ্বারা সমৃদ্ধ। যা মুখের কালচে দাগ দূর করে। সেই সাথে ত্বকের দাগ দূর করতে সক্ষম। এই ক্রিম ত্বককে UVA & UVB রশ্মি থেকে রক্ষা করে। এছাড়া এ ক্রিমে রয়েছে SPF ও টাইটানিয়াম ডিওক্সাইড। যা তেলতেলে ত্বকের জন্য খুবেই ভালো।

  • সিক্রেট ফেসপ্যাক

    সিক্রেট ফেসপ্যাক পরিমান : ২৫০ গ্রাম। কাজঃ স্কীন ফেয়ার, গ্লো & স্মুথ করে। সান বার্ন…
    Add to cart 380.00৳ 

কিন্তু এ সব ক্রিম এ পার্শ্বপ্রতিকৃয়া থাকতে পারে। সে জন্য পাইকারিঘর এর স্পেশাল ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। এখানে রয়েছে বহু সংখ্যক প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদানের সমষ্টি। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে এই প্রডাক্টে কোনো পার্শপ্রতিকৃয়া নেই।



সিক্রেট ফেসপ্যাক এর বিশেষত্বঃ

  • স্কিন গ্লো করে
  • সানবার্ন রিমুভ করে
  • ডার্ক সার্কেল / চোখের নিচের কালচে দাগ রিমুভ করে
  • ব্ল্যাক/হুয়াইটহেড বের করে আনে চোখের সামনে।
  • ডিপ ক্লিন করে
  • অনেকের স্কিন কারণ ছাড়াই মলিন হয়ে কালচে হয়ে আসে।এটি অসাধারনভাবে স্কিন উজ্জ্বল করতে পারে
  • প্রথমবার ইউজের পরই বুঝতে পারা যায় এটা কতটা ভালো কাজ করে।৭ দিনের ভেতর রেসাল্ট পাওয়া যাবেফুল নিয়মমতো ইউজ করলে রেসাল্ট পাবেন না এমন কেও হবেন না।
  • এই প্রতিটি কাজ করে পার্মানেন্টলি।ইউজ করা ছেড়ে দিলেও কোন প্রব্লেম হয় না আর আগের মতোও হয়ে আসে না।যতখানি ব্রাইট হয়েছেন তাই থাকবেন

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

six + 10 =